• ধর্ম
  • »
  • আখেরাতমূখী আমলী জিন্দেগী গঠন করাই তরীকা ও তাসাউফের মূল লক্ষ্য : ছারছীনার পীর

আখেরাতমূখী আমলী জিন্দেগী গঠন করাই তরীকা ও তাসাউফের মূল লক্ষ্য : ছারছীনার পীর

NewsBarisal.com

প্রকাশ : নভেম্বর ২৯, ২০২১, ৭:১৫ অপরাহ্ণ

ছারছীনা থেকে মোঃ আবদুর রহমান ॥ আমীরে হিযবুল্লাহ ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.) বলেছেন- আমরা আল্লাহর বান্দা। একজন নেককার বান্দা হবার জন্য আমাদিগকে আল্লাহর ইবাদত বন্দেগী করতে হবে।

আল্লাহর ইবাদত বন্দেগী শুধু নামাজ, রোজা, হজ্ব ও যাকাতের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। বরং জীবনের সকল ক্ষেত্রে আল্লাহর মনোনীত দ্বীন ইসলামের বিধান বাস্তবায়ন করাই হলো প্রকৃত ইবাদত বন্দেগী। আবার যে কোন নেক কাজ দুনিয়ার উদ্দেশ্যে হলে তার দ্বারা নাজাত পাওয়া যাবেনা। তাই পরকালে নাজাত তথা মুক্তি পেতে হলে আল্লাহর রেজামন্দী লাভের উদ্দেশ্যে ইসলামী জিন্দেগী যাপন করতে হবে।

পীর ছাহেব কেবলা আরও বলেন- অত্র দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা পীর কুত্ববুল আলম শাহসূফী হযরত মাওলানা নেছার উদ্দীন আহমদ (রহঃ) ফুরফুরা শরীফ হতে তরীকা ও তাসাউফে কামালিয়াত অর্জন করার পর খেলাফত প্রাপ্ত হয়ে এই ছারছীনা দরবারকে প্রতিষ্ঠা করেন। তার পরশ ছোঁয়ায় লক্ষ লক্ষ মাানুষ হিন্দুয়ানী কৃষ্টি কালচারের বেড়াজাল ছিন্ন করে ইসলামী জিন্দেগীতে জীবন যাপনের প্রায়াস পান।

তরীকা ও তাসাউফ মশক করে আল্লাহর পেয়ারা বান্দা ও খাস ওলীতে পরিণত হন। তার প্রতিষ্ঠিত বাংলা ও আসামের প্রথম কামিল মাদ্রাসা হতে হাজার হাজার আলেম বের হয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মাদ্রাসা, মসজিদ, খানকাহ ও ঈছালে ছওয়াব মাহফিল প্রতিষ্ঠা করে দ্বীন প্রচার করে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন।

শত বছর পেরিয়ে অত্র দরবার শরীফের সমাজ সংস্কারের যে ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে সামনে যেন আরও ব্যাপকভাবে সে ধারা চলমান থাকে সেজন্য সকরকে সহযোগীতা করার জন্য উদাত্ত আহবান জানান। সোমবার ছারছীনা দরবার শরীফের ১৩১ তম তিনদিনব্যাপী ঈছালে ছওয়াব মাহফিলের ১ম দিন বাদ মাগরীব হযরত পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন।

মাহফিলের ১ম দিন বাদ ফজর জিকিরের তা’লীম দেন বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমীর ও হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন। এছাড়াও বিষয়ভিত্তিক কুুরআন ও হাদীসের আলোকে আলোচনা করেন-

মরহুম পীর ছাহেব হুজুরের সফরসঙ্গি মাওঃ আবু জাফর মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা, মাওঃ আ. জ. ম. অহিদুল আলম, মাওঃ ছফিউল্লাহ আল মামুন, মাওঃ আ. জ. ম. ওবায়দুল্লাহ প্রমুখ। মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- পিরোজপুরের পুলিশ সুপার সাইদুর রহমান,

বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাঈদুর রহমান রিন্টু প্রমূখ। আজ মাহফিলের ২য় দিন। আগামীকাল বাদ জোহর হযরত পীর ছাহেব কেবলা দেশ,জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে তিনদিনব্যাপী মাহফিলের আখেরী মুনাজাত পরিচালনা করবেন ইনশাআল্লাহ।

(Visited 1 times, 1 visits today)

 



সর্বশেষ সংবাদ