• এক্সক্লুসিভ
  • »
  • বরিশালে ১৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

বরিশালে ১৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

NewsBarisal.com

প্রকাশ : নভেম্বর ১৬, ২০২১, ১:৫৭ পূর্বাহ্ণ

ফাহিম ফিরোজ ॥ সদ্য অনুষ্ঠিত বরিশালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। প্রাপ্ত ভোটের আট ভাগে একভাগ না পেলে সেই প্রার্থীদের জামানত বাজেয়াপ্ত বলে ঘন্য হয়। সেই হিসেবে দ্বিতীয় ধাপে বরিশালের ৫টি ইউনিয়নে ১৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নে ১১৬৭২ ভোট প্রদান করে ভোটাররা। এর মধ্যে বিভিন্ন কারণে ৩০৩ ভোট বাতিল করা হয়। প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিবুর রহমান খোকন মোটর-সাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮৩৪ ভোট, মামুনুর রশীদ টেলি ফোন প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১১ ভোট, মিজানুর রহমান চৌধুরী আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৮৭ ভোট, হাবিবুর রহমান নাঙ্গল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫৫
ভোট।

চাঁদপুরা ইউনিয়নে ১১৮৭১ ভোট প্রদান করে ভোটাররা। এর মধ্যে বিভিন্ন কারণে ১৫৫ ভোট বাতিল করা হয়। প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে চাঁদপুরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আমান চশমা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৩১৯ ভোট, হেলাল উদ্দিন বিশ্বাস মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩২০ ভোট।

চরকাউয়া ইউনিয়নে ১৯০৭১ ভোট প্রদান করে ভোটাররা। এর মধ্যে বিভিন্ন কারণে ৫০৪ ভোট বাতিল করা হয়। প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে চরকাউয়া ইউনিয়নে জয়নাল আবেদীন নাঙ্গল প্রতীক নিয়ে ১৪৮২ ভোট পেয়েছেন, পলাশ তালুকদার রজনীগন্ধা প্রতীক নিয়ে ৪৪ ভোট পেয়েছেন, হারুন অর রশীদ হাওলাদার আনারস প্রতীক নিয়ে ১৫২৪ ভোট পেয়েছেন, সুলতান আহম্মেদ খান চশমা প্রতীক নিয়ে ৪৯০ ভোট পেয়েছেন, মামুন সরদার মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে ১৮৯৫ ভোট পেয়েছেন।

চরমোনাই ইউনিয়নে ১৭৯৩২ ভোট প্রদান করে ভোটাররা। এর মধ্যে বিভিন্ন কারণে ৩১৫ ভোট বাতিল করা হয়। প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে চরমোনাই ইউনিয়নে জাহিদুর রহমান টেবিল ফ্যান প্রতীক নিয়ে ২৭ ভোট পেয়েছেন, সাব্বির হোসেন আনারস প্রতীক নিয়ে ২৭২ ভোট পেয়েছেন, সৈয়দ মোঃ নুরুল করিম চশমা প্রতীক নিয়ে ২২ ভোট পেয়েছেন।

সৈয়দকাঠী ইউনিয়নে ১৩১১৮ ভোট প্রদান করে ভোটাররা। এর মধ্যে বিভিন্ন কারণে ২৪১ ভোট বাতিল করা হয়। প্রাপ্ত ভোটের মধ্যে সৈয়দকাঠী ইউনিয়নে আব্দুর রহিম মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে ৪০ ভোট পেয়েছেন, কবির হোসেন হাতপাখা প্রতীক নিয়ে ৩৪০ ভোট পেয়েছেন।

এরা সবাই জামানত হারিয়েছেন। ইউপি নির্বাচনে
চেবয়ারম্যান পদে অংশগ্রহণের জন্য জামানত রাখার বিধান রয়েছে। প্রাপ্ত কাস্টিং ভোটের ৮ ভাগের এক ভাগ না পেলে তাদের জামানত
বাতিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুল মান্নান জানান, প্রাপ্ত ভোটের এক-অষ্টমাংস ভোটের কম পেলে সেই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

 



সর্বশেষ সংবাদ