সন্তানকে পুকুরে ছুড়ে হত্যা, ঘাতক মা আটক

NewsBarisal.com

প্রকাশ : অক্টোবর ১৩, ২০১৯, ৬:২৬ অপরাহ্ণ

কালকিনি প্রতিনিধি : মাদারীপুরের কালকিনি পৌর এলাকার দক্ষিন ঠেঙ্গামাড়া গ্রামের একটি পুকুর থেকে ১৪দিনের জামিলা নামের এক নবজাতক কন্যাশিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

তবে পুলিশের দাবি শিশুটির মা ময়না আক্তার (২২) শিশুটিকে পানিতে ফেলে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় ওই ঘাতক মা ময়না আক্তারকে আটক করেছে থানা পুলিশ। আজ রোববার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, দক্ষিন ঠেঙ্গামাড়া গ্রামের সত্তার সরদারের ছেলে সুজন সরদার দীর্ঘদিন যাবত বিদেশ থাকেন। এ নিয়ে তাদের সংসারে স্বামী-স্ত্রীর সঙ্গে বিরোধ চলে আসছে।

এর জের ধরে তার স্ত্রী ময়না আক্তার দুপুরে তার নবজাতক জামিলাকে পরিবারের সকল সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে ঘরের পাশের পুকুরে ফেলে দেন। পরে পরিবারের লোকজন ওই নবজাতকের লাশ দেখতে পান। পরে এলাকাবাসী ঘটনাটি পুলিশকে জানায়।

খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশ ওই শিশুটির মা-বাবাসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। একপর্যায়ে মা ময়না তাঁর শিশুটিকে পুকুরে ফেলে দিয়েছেন বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেন।

এ ঘটনায় পুলিশ ওই ঘাতক মা ময়না আক্তারকে আটক করেন। শিশুটির বাবা সুজন সরদার কান্না জরিত কণ্ঠে বলেন, ‘আমরার সংসারও কুনু অভাব নাই। আমার বউ কেনযে এই ঘটনা ঘডাইলো যানিনা।

এ ঘটনা এখন আইনে যা হয় আমি হেইডাতেই রাজি আছি।’ কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, নবজাতককে পুকুরের পানিতে ফেলে দেওয়ার কথা শিশুটির মা ময়না স্বীকার করেছেন।

তাঁকে আটক করা হয়েছে। তবে কেন হত্যা করেছেন, সে বিষয়ে তিনি মুখ খুলছেন না। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 



সর্বশেষ সংবাদ
%d bloggers like this: