• খেলাধুলা
  • »
  • যে কারণে বানারীপাড়ায় শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জণ

যে কারণে বানারীপাড়ায় শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জণ

NewsBarisal.com

প্রকাশ : সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯, ৩:১৭ অপরাহ্ণ

সুজন মোল্লা, বানারীপাড়া : বানারীপাড়ায় গ্রীস্মকালীন আন্তঃস্কুল ক্রীয়া প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহন করতে না দেয়ায় উপজেলার ইলুহার ইউনিয়নের মলুহার ওয়াজেদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জণ করে বিদ্যালয় সংলগ্ন ইলুহার ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থান নিয়েছেন বলে জানাগেছে।

জানাগেছে চলতি বছরের গ্রীস্মকালীন আন্তঃস্কুল ক্রীয়া প্রতিযোগীতায় বানারীপাড়া, চাখার, বাইশারী ও প্রত্যন্ত জনপদ বিশারকান্দি ইউনিয়নে পৃথক ভাবে ৪টি স্থানে খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

এর মধ্যে মরিচবুনিয়া মাধ্যমিক, মলুহার ওয়াজেদিয়া মাধ্যমিক, বলদিয়া মলুহার মাধ্যমিক, আজিজুল হক মাধ্যমিক ও চৌমোহনা মাধ্যমিক বিদ্যালয় এই ৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান’র শিক্ষার্থীরা বিশারকান্দি ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে প্রতিযোগীতা করবেন।

শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় পৃথকভাবে উল্লেখিত স্থানে নির্ধারিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ গ্রহন করলেও বিশারকান্দি ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহন করতে পারেনি মলুহার ওয়াজেদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহন করতে না পাড়ায় ওই বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা তাদের ক্লাস বর্জণ করে বিদ্যালয় সংলগ্ন ইলুহার ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থান নিয়েছেন।

এবিষয়ে বানারীপাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মোস্তফা আলম জানান,বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সেলিম মিয়ার কাছে তিনিও জানতে চেয়েছেন তার শিক্ষার্থীরা কেন অংশ গ্রহন করনেনি। জবাবে প্রধান শিক্ষক জানান,গত বছর প্রতিযোগীতা চলার সময় শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংর্ঘষ হয়েছে তার জন্যই তাদেরকে অংশ গ্রহন করতে দেওয়া হয়নি।

তবে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরও জানান,তিনি (প্রধান শিক্ষক) প্রতিযোগীতা শুরুর আগে কখনও তাকে অবহিত কনেরনি তাদের খেলার জোনে যেতে নিরাপত্তাহীনতার বিষয় রয়েছে। বললে পুলিশ প্রসাশনের মাধ্যমে বিষয়টি নিস্পত্তি করে বা তাদের প্রটোকলে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহনের ব্যবস্থ্যা করতেন তিনি।

এবিষয়ে মলুহার ওয়াজেদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সেলিম মিয়া জানান,চলতি বছরের আগে পরপর ৪টি প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহন করে তার বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হবার পরে প্রতিপক্ষ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সমর্থকরা তাদের ওপরে হামলাসহ শিক্ষকদের লাঞ্চিত করেছে।

এবছর এ বিষয়টি ম্যানেজিং কমিটির এজেন্ডায় এনে মরিচবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে তারা শিক্ষার্থীদের খেলতে দেয়নি। তিনি আরও জানান নবম ও দশম শ্রেণীর সকল শিক্ষার্থী ক্লাস বর্জণ করে নয় ১৫/২০জন ছাত্র ইউনিয়ন পরিষদে গিয়েছিলো চেয়ারম্যানের কাছে বিষয়টি জানাতে।

অবস্থান নেয়া শিক্ষার্থীরা জানান,তাদের বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহন করতে দেয়া হচ্ছে,সেখানে ছাত্রদের অংশ গ্রহনে বাধা কেন। আর প্রতি বছরই খেলার সময় ঝামেলা হবে এমন কোন কথা নেই।

আমাদের খেলায় অংশ গ্রহন করতে দেয়া দরকার ছিলো। কেননা আমাদের বিদ্যালয় এই প্রতিযোগীতায় ধারাবাহিকভাবে সফলতা অর্জণ করে আসছে।

 



সর্বশেষ সংবাদ
%d bloggers like this: