• Uncategorized
  • »
  • বিতর্কিত বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন আ’লীগ নেতা রাসেল

বিতর্কিত বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন আ’লীগ নেতা রাসেল

NewsBarisal.com

প্রকাশ : August 3, 2022, 6:35 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বাউফল : ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে আলোচনায় আসা পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জোবায়দুল হক রাসেল তদন্ত কর্মকর্তার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

বুধবার বরিশালের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন এর কাছে তিনি ক্ষমা চেয়ে বলেন, আমি যেভাবে বক্তব্য দিয়েছি সেভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা গণমাধ্যমে প্রচার করা হয়নি। ভোট গ্রহণের বিষয়ে আমি যেভাবে বুঝাতে চেয়েছি সেভাবে বুঝাতে পারিনি বলে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

এর আগে বাউফল উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম তার কার্যালয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী, স্থানীয় সাংবাদিক ও সূধীজনকে তদন্ত উপলক্ষে আমন্ত্রণ জানান।

এ সময় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা খান আবি শাহনুর খান, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম, নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী ইব্রাহিম ফারুক, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এসএম মহসীন, বাউফল প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোসারেফ হোসেন খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ২৩ জুলাই নৌকা মার্কার পক্ষে আয়োজিত এক উঠান বৈঠকে ইভিএম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ নেতা জোবায়দুল হক রাসেল। পরে তার বক্তব্যর ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, আওয়ামী লীগ নেতা জোবায়দুল হক রাসেল বলছেন ‘ভোট হবে ইভিএমে, কে কোথায় ভোট দেবে তা আমাদের কাছে চলে আসবে’।

তার এ বক্তব্য নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর নির্বাচন কমিশন ওই ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে। একই সঙ্গে বরিশালের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিনকে সরেজমিন তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়।

বুধবার তিনি (৩ আগস্ট) সরেজমিন তদন্ত করেন। এ সময় জোবায়দুল হক রাসেল সাংবাদিকদের বলেন, উঠান বৈঠকে ইভিএমে ভোটগ্রহণের বিষয়টি আমি যেভাবে বুঝাতে চেয়েছিলাম সেভাবে বুঝাতে পারিনি। তাই ব্যর্থতা আমার। তাছাড়া আমার বক্তব্য এডিট করে খণ্ডিত অংশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করা হয়েছে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

 



সর্বশেষ সংবাদ